ঝুঁকি নিয়ে বোটে করে নগর ছাড়ছেন পোশাক শ্রমিকরা

রবিউল হোসেন রবি | আপডেট : ২৬ মে, ২০২০ মঙ্গলবার ০৪:৪০ পিএম

সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গভীর রাতে বোটে করে চট্টগ্রাম নগর ছাড়ছেন পোশাক শ্রমিকরা। করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন পরিস্থিতি উপেক্ষা করে ঈদের ছুটিতে বাড়ি ফেরার মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে নৌকা। সেখানে একপ্রকার ঝুঁকি নিয়েই বাড়ি ফিরছেন তাঁরা। নির্দিষ্ট ভাড়ার চেয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করে তাঁদের এই সুযোগ তৈরি করছেন স্থানীয় কয়েকজন। এমন অভিযোগ উঠেছে আকমল আলী বেড়িবাঁধ এলাকার স্থানীয় অসাধু একটি সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে।

রবিবার (২৪ মে) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, নগরীর সিইপিজেড ও কর্ণফুলী ইপিজেড এলাকার বেরিবাঁধ এলাকায় ঝুঁকি নিয়ে যাত্রীরা উঠছে নৌকায়। তাঁদের সবারই গন্তব্য দেশের বিভিন্ন জেলা। এদের কারও মুখেই নেই মাস্ক, তাঁদের মধ্যে নেই সামাজিক দূরত্ব। সাংবাদিক দেখে মুহূর্তেই ঘটনাস্থল ত্যাগ করে গন্তব্যস্থলে যাত্রা শুরু করে নৌকাগুলো।

অভিযুক্তরা হলেন, ইপিজেড ধানার আকমল আলী বেড়িবাঁধ এলাকার মাদক ব্যবসায়ী মাহাবুব ও দুলালসহ কয়েকজন স্থানীয়। যাত্রীদের কাছ থেকে জনপ্রতি ভাড়া নেয় ২-৩ হাজার টাকা।

এর আগে গত ২২ মে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ সদর দফতরের নির্দেশনায় বলা হয়, মানুষ ব্যক্তিগত গাড়িতে বাড়ি ফিরতে পারবে। তবে গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। তবে কেউ যেন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাড়ি ফেরার চেষ্টা না করে তা নিশ্চিত করারও নির্দেশনা দেওয়া হয়।

তবে এসব নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করেই উল্লেখিত অসাধু ব্যক্তিরা করোনাভাইরাস সৃষ্ট পরিস্থিতিকে কাজে লাগিয়ে ঈদ যাত্রায় নগর ছাড়তে ঝুঁকির মধ্যে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে শত শত পোশাক শ্রমিককে- জানিয়েছেন সচেতন মহল।

আরও পড়ুন: লকডাউনেও ইপিজেড-পতেঙ্গাজুড়ে চলছে ভবন নির্মাণকাজ!

স্থানীয়রা জানান, বেশ কিছুদিন ধরেই এই অসাধু সিন্ডিকেট সরকারি নির্দেশনার তোয়াক্কা না করে নিজেদের স্বার্থের কথা বিবেচনা করে ঝুঁকি নিয়ে যাত্রী পারাপার করে আসছেন। এসব যাত্রীরা বেশিরভাগ গার্মেন্টস শ্রমিক হওয়ায় তাঁরাও না বুঝে নাড়ির টানে বাড়ির পথে ছুটছেন।

জানতে চাইলে ইপিজেড থানার পরিদর্শক (ওসি) মুহাম্মদ হোসাইন বলেন, ‘আমি এই মুহুর্তে ব্যস্ত আছি। এখন কোনো বক্তব্য দিতে পারছিনা।’

এবিষয়ে জানার জন্য ইপিজেড থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর নুরুল হুদার মুঠোফোনে একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার পক্ষ থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।

সিটিজিসান ডটকম/সিএস/আরএইচ

Print This Post