পেটের ভেতরে বহন করছিল ইয়াবা, বিষক্রিয়ায় মাদক ব্যবসায়ী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট : ৯ জুলাই, ২০২০ বৃহস্পতিবার ০৮:৩০ পিএম

তার নাম তৈয়ব আলী (৩০)। পেশায় একজন মাদককারবারি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ফাঁকি দিতে পায়ূপথ দিয়ে পেটের ভেতরে ঢুকানো হয় ইয়াবার কয়েকটি চালান। ইয়াবার চালান নিয়ে গন্তব্যে পৌঁছার পর বের করার সময়ে পেটের ভেতরে থেকে যায় ইয়াবা মোড়ানো প্যাকেটের অংশ। এতে আটকে থাকা ওই অংশগুলো বিষক্রিয়া হয়ে একপর্যায়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই যুবক। পরে তাকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

বুধবার (৮ জুলাই) বিকেল ৫টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত তৈয়ব আলী চট্টগ্রামের আনোয়ারার বারশত ইউনিয়নের দুধকুমড়া গ্রামের আলী আকবর মনুর পুত্র।

জানা গেছে, তৈয়ব একজন মাদককারবারি। টেকনাফ থেকে নিজের পেটের ভেতর করে ইয়াবা চালান পাচার করতেন। ওই সময় তার সঙ্গে ছিলেন আরও দুই মাদককারবারি। গন্তব্য পৌঁছার পর তৈয়ব বাথরুম গিয়ে করে ইয়াবার প্যাকেট বের করার চেষ্টা করলে পেটের ভেতরে প্যাকেটের অংশ থেকে যায়। একপর্যায়ে পেটে থাকা ওই অংশগুলো ফেটে বিষক্রিয়া হলে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। এরপর গুরুততর অবস্থায় তাকে চমেক হাসপাতালে নেওয়া হয়। গতকাল বুধবার বিকেলে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আনোয়ারা থানার ওসি দুলাল মাহমুদ বলেন, মৃত তৈয়ব একজন প্রফেশনাল আলী মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন। প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে পুলিশকে ফাঁকি মেরে পেটের ভেতর ইয়াবা পাচারের পথ বেছে নিয়েছিলেন তিনি। পরে বের করার সময় আটকে গেছে ইয়াবার মোড়ানো প্যাকেটের অংশ। এতে পেটে বিষক্রিয়ার কারণে চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার তার মৃত্যু হয়েছে।

তার পরিবারের পক্ষে কোনও অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তৈয়বের সঙ্গে থাকা দুই মাদককারবারিকে ব্যাপারে খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে— যোগ করেন ওসি।

সিটিজিসান ডটকম/সিএস

Print This Post