যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন এসকে সিনহা

অনলাইন ডেস্ক | সিটিজিসান.কম

আন্তর্জাতিক: অর্থপাচার, নৈতিক স্খলনসহ সুনির্দিষ্ট ১১টি অভিযোগ মাথায় নিয়ে দেশ ছাড়েন সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। তার বিরুদ্ধে ছোট ভাই অনন্ত কুমার সিনহার নামে যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে প্রায় ৪ হাজার স্কয়ার ফিটের ২ কোটি ৩০ লাখ টাকা দিয়ে তিনতলা বাড়ি কেনার খবরও প্রমাণ হয়েছে সম্প্রতি।

এরমধ্যে এসকে সিনহাকে রাজনৈতিক আশ্রয় দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তাকে ইচ্ছামতো যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস এবং কাজের অনুমতিও দিয়েছে সে দেশের সরকার।

এর আগে ওয়াশিংটন প্রেস ক্লাবে বহুল আলোচিত ‘এ ব্রোকেন ড্রিম’ বইয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সিনহা জানান, তিনি যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয়ের জন্য পররাষ্ট্র দফতরে আবেদন করেছেন।

তার এই আবেদন শুক্রবার মঞ্জুর করে দেশটির পররাষ্ট্র দপ্তর। একাধিক দায়িত্বশীল কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের একটি সংবাদমাধ্যম বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সংবাদমাধ্যমটি বলছে, সম্প্রতি সিনহার আবেদনের ওপর একটি শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানিতে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের প্রতিনিধি, কংগ্রেস প্রতিনিধি এবং যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তায় কাজ করা সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে এসকে সিনহার রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদনটি গৃহীত হয়।

এসকে সিনহা একটি ভাষণে বলেন, ‘এই দেশে (যুক্তরাষ্ট্র) আমার কোনো পরিচয় (স্ট্যাটাস) নেই। আমি শুধু একজন আশ্রয় প্রার্থী। তাই আমি এখানে রাজনৈতিক আশ্রয় পাওয়ার জন্য আবেদন করেছি।’

তিনি বলেন, আমি নিরাপদবোধ করছি না। আমি ভীত থাকি, ২৪ ঘণ্টা বাসাতেই থাকি। গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তারা আমার বাসা সব সময় মনিটরিং করে এবং যারা আমার বাসায় যায় তাদের ছবি তোলা হয়।

সিএস/সিএম

Print This Post