মুক্তিযোদ্ধা কোটা : মৌখিক পরীক্ষায় প্রার্থী ৩৬৮

index20161117141724
চট্টগ্রাম :: প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে প্রাক-প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক পদে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চট্টগ্রামে ১৫০ জন নিয়োগ পাচ্ছেন। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৩৬৮ প্রার্থীর মধ্যে মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণরাই এ নিয়োগ পাবেন।

লিখিততে উত্তীর্ণদের মৌখিক পরীক্ষা তিন দফায় ২৬ থেকে ২৮ নভেম্বর চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে। এরই মধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় চট্টগ্রামের ২০ শিক্ষা থানার ১ হাজার ৬৩৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষাকে তরান্বিত করতে একটি করে সহকারী শিক্ষকের পদ সৃষ্টি করে। সেই প্রেক্ষিতে প্রাক প্রাথমিকে ইতোমধ্যে তিন দফায় নিয়োগ দিয়েছে মন্ত্রণালয়। পরে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় নিয়োগের জন্য আবেদন আহবান করে। আবেদন অনুসারে ইতোমধ্যে লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা বিষযটি নিশ্চিত করেছেন।
প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় মুক্তিযোদ্ধা কোটায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের আবেদনের কপি, লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্র, নাগরিকত্ব সনদ, শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদসহ মুক্তিযোদ্ধা সনদ, মুক্তিযোদ্ধার সাথে সম্পর্ক সনদসহ যাবতীয় কাগজপত্রের মূলকপি ২০ নভেম্বরের মধ্যে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে প্রদর্শন করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন বলে তিনি জানান।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে চট্টগ্রাম জেলার ১৪ উপজেলা ও মহানগরীর ৬ শিক্ষা থানায় প্রধান শিক্ষকের ৪৪২টি ও সহকারী শিক্ষকের ৬৪৮টি শূন্যপদ রয়েছে। প্রধান শিক্ষকের ২ হাজার ২১৭টি পদের মধ্যে বর্তমানে কর্মরত আছেন ১ হাজার ৭৩৫ জন, সহকারী শিক্ষকের ১১ হাজার ২৪৭টি পদের মধ্যে কর্মরত আছেন ১০ হাজার ৫৯৯ জন।

কক্সবাজার জেলার ৮ শিক্ষা থানায় ১৫৩টি প্রধান শিক্ষক ও ৫২৩টি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। তিন পাবর্ত্য জেলার (রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান) ২৫ শিক্ষা থানায় ৩২৯টি প্রধান শিক্ষক ও ৩১৭টি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য বলেও জানান তিনি।

সিটিজিসান.কম/রবি

Print This Post