রাতে মোবাইল ব্যবহারে বাঁধা দেয়ায় কিশোরের আত্মহত্যা ডবলমুরিংয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট : ৫ মার্চ, ২০২১ শুক্রবার ০২:০৯ পিএম

চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার রশিদ বিল্ডিং এলাকায় বড় বোনের সঙ্গে ঝগড়া করে ইমন হোসেন খান (১৫) নামে এক কিশোর আত্মহত্যা করেছেন।

বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) দিবাগত ভোর রাতে আমির সওদাগরের ভাড়া বাসা থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে।

নিহত ইমন হোসেন খান পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর এলাকার তেঁতুলিয়া গ্রামের মৃত শাহাবুদ্দিন খানের ছেলে। সে তার বোনের বাসায় থাকতো।

নিহত কিশোরের বড় বোন রুবিনা আক্তার বলেন, ‘আমি আমার স্বামীসহ ভাড়ায় থাকি। আমাদের সাথে আমার ছোট ভাইও থাকতো। সে প্রতিদিন রাত জেগে মোবাইল ব্যবহার করতো। আমি প্রায়ই নিষেধ করতাম। কিন্তু ঘটনার দিন ১২টার দিকে মোবাইল ব্যবহার করতে দেখলে আমি মোবাইলটা নিয়ে নিই।’

‘পরে ভোর চারটার দিকে দেখি, তার গলায় ফাঁস লাগিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আছে। পরে পুলিশকে খবর দিই।’

ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন বলেন, ‘ভোরে রশিদ বিল্ডিং এলাকায় এক কিশোরের আত্মহত্যার খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ডবলমুরিং থানা পুলিশ। পরিবার সূত্রে জানতে পারি, মোবাইল নিয়ে ঝগড়ার জেরে সম্ভবত রাগ করে সে আত্মহত্যা করেছে।’

নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

সিএস

Print This Post