আড়াই লাখ টাকার ফেন্সিডিলের চালান চট্টগ্রাম আসার আগেই আটকে দিল র‍্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বৃহস্পতিবার ০৪:১০ পিএম

আমান ও মহসিন। দীর্ঘদিন যাবত কুমিল্লা জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা হতে মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে সুকৌশলে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনকারীদের কাছে বিক্রি করতো তারা। একইভাবে কুমিল্লা থেকে আড়াই লাখ টাকার ফেন্সিডিলের চালান নিয়ে আসছিল ওরা। — এমন সংবাদের ভিত্তিতে সীতাকুণ্ডের উত্তর বাজার টেকনো ফিলিং স্টেশনের সামনের ঢাকা- চট্টগ্রাম মহাসড়কে অবস্থান নেয় র‍্যাব-৭ এর একটি টিম। এরই মধ্যে চেকপোস্টের দিকে আসা একটি ট্রাকের গতিবিধি সন্দেহ হয়।

ট্রাকটি চেকপোস্টের সামনে না থামিয়ে দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পিছু নেয় র‍্যাব সদস্যরাও। শেষপর্যন্ত র‍্যাবের হাতে ধরা পড়ে ওই দুই মাদক ব্যবসায়ী।

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ৩টার সময় তাদের ট্রাকসহ আটক করে র‍্যাব। এসময় উদ্ধার করা হয় ৪৯৪ বোতল ফেন্সিডিল।

আটক দুই মাদক ব্যবসায়ী হলেন, ফেনী জেলার সদর থানার দাউদপুর এলাকার হানিফ মিয়ার বাড়ীর মৃত আ. বারেকের পুত্র আমান ও চট্টগ্রাম জেলার ভুজপুর থানার মুসলিমপুর এলাকার ড্রাইভারের বাড়ির শফি আলমের পুত্র মো. মহসিন।

র‍্যাব জানায়, একটি ট্রাক যোগে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্য নিয়ে কুমিল্লা হতে চট্টগ্রাম এর দিকে আসছে মাদক ব্যবসায়ী। এমন তথ্যের ভিত্তিতে সীতাকুণ্ডের উত্তর বাজার এলাকার টেকনো ফিলিং স্টেশনের সামনের ঢাকা- চট্টগ্রাম মহাসড়কে গাড়ি তল্লাশি চালানো হয়।

এসময় সন্দেহজনক গতিবিধির একটি ট্রাক র‌্যাবের চেকপোস্টের সামনে না থামিয়ে দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে র‌্যাব সদস্যরা ধাওয়া করে। পরে আসামিদের হেফাজতে থাকা ট্রাকের ভিতর ২টি চটের বস্তার ভিতরে থাকা ৪৯৪ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধারসহ আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয় এবং ওই ট্রাকটি (ফেনী-ট-১১-০৭৭২) জব্দ করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক মো. নুরুল আবছার বলেন, ‘তারা দীর্ঘদিন যাবত কুমিল্লা জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা হতে মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে পরবর্তীতে বিভিন্ন কৌশলে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনকারীদের নিকট বিক্রয় করছে।’

তিনি বলেন, ‘উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মূল্য ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং জব্দকৃত ট্রাকের আনুমানিক মূল্য ৫০ লক্ষ টাকা।’

গ্রেফতারকৃত আসামিদের সীতাকুণ্ড মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

আরএইচআর/সিএস

Print This Post