বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ড, ১৫ ঘর পুড়ে ছাই বাঁশখালীতে

চট্টগ্রামের বাঁশখালীত উপজেলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১৫ টি বসতবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুর ২টার দিকে গণ্ডামারা ইউনিয়নের পুর্ব বড়ঘোনার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের পাতলা বাপের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে।

আগুনে ভস্মীভূত হয়ে গেছে মরহুম শফিকুর রহমান, মাওলানা ছৈয়দুল আলম কালু ও মোজাম্মেল মাঝি, কলিম উল্লাহ মিসবাহসহ সহ মোট ১৫ জনের বাড়ি।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, দুপুর ২টার সময় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। স্থানীয়রা দীর্ঘ ১ ঘন্টা আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি।

আগুনের সূত্রপাত ঘটলে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন এলাকাবাসী। কিন্তু জরাজীর্ণ রাস্তাঘাট ও দূর্গম এলাকা হওয়ায় ২ঘন্টা চেষ্টা করেও ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

পরে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার খবর পেলে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা মাঝপথ থেকে ফিরে যায়।

বাঁশখালী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মী তৈয়বুর রহমান বলেন, ‘দুপুর ২টা ২০মিনিটে আমরা খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১টা গাড়ি ঘটনাস্থলে যাওয়ার জন্য রওনা দিই। কিন্তু যাতায়াত ব্যবস্থা ভাল না থাকায় আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে পারিনি।’

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন গণ্ডামারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লেয়াকত আলী ও সাবেক চেয়ারম্যান মাওলানা আরিফ উল্লাহ।

পরিদর্শনকালে চেয়ারম্যান লেয়াকত আলী ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের খোঁজখবর নেন এবং ১৫ পরিবারকে নগদ ১০হাজার টাকা করে মোট ১লক্ষ ৫০ হাজার টাকা অনুদান দেন।

এমবিইউ/আরএইচ

Print This Post