‘বিদেশ ফেরতরা নেগেটিভ সনদ নিয়ে আসলেও করোনা টেস্ট করতে হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট : ১৭ নভেম্বর, ২০২০ মঙ্গলবার ০৬:২০ পিএম

করোনা মোকাবিলায় যারা বিদেশ থেকে নেগেটিভ সনদ নিয়ে দেশে ফিরবেন, বিমানবন্দরগুলোতে তাদেরও টেস্ট করা হবে এমনটাই জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন।

মঙ্গলবার (নভেম্বর) দুপুরে ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে এক অনুষ্ঠান শেষে গণমাধ্যম কর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে তিনি একথা জানান।

বিদেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে প্রয়োজনে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধের সুপারিশ করা হবেও বলে জানান মন্ত্রী।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসছে বেশ জোরেশোরেই। যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, পর্তুগাল, ইতালিসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশ এর মধ্যেই লকডাউন কার্যকর করেছে। কড়াকড়ি জারি করা হয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ওপর।

দেশে গত মার্চ মাসে করোনার প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়ার পরও বেশ কিছুদিন আন্তর্জাতিক ফ্লাইটে বিমান চলাচল অব্যাহত ছিল। সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পেছনে প্রবাসীদের প্রবেশে শিথিলতাকেও অনেকাংশে দায়ী করা হয়। এ অবস্থায় এবার শুরু থেকেই কড়াকড়ি করা হবে, এমনকি নেগেটিভ সনদ নিয়ে যারা আসবেন, তাদেরও টেস্ট করা হবে বলে দাবি করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রথম আসার পর প্রত্যেককে আমরা টেস্ট করবো। একদিন আমরা রেজাল্ট দেখবো, আমরা পিসিআর টেস্ট করে রেজাল্ট দেখবো কি অবস্থা। যদি মনে নেগেটিভ আছে তখন তাদের সেল্ফ কোয়ারেনটাইনে পাঠিয়ে দেয়া হবে। যারা নেগেটিভ নিয়ে আসবেন তাদেরও দেখবো অবস্থার কোনো পরিবর্তন হয়েছে কিনা। এ ব্যাপারে আমরা বেশ কড়া অবস্থানই নিচ্ছি।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় এর মধ্যেই পররাষ্ট্র সচিবকে প্রধান করে ৫ সদস্যের একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সিএস

Print This Post