১২ ঘন্টা মৃত্যুর সাথে লড়াইয়ের পর হার মানলেন সেই পেয়ারী বেগম

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট : ৯ নভেম্বর, ২০২০ সোমবার ০২:০০ পিএম

দীর্ঘ ১২ ঘন্টা লড়াইয়ের পর চট্টগ্রাম নগরীর আকবরশাহ থানার উত্তর কাট্টলিতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের আগুনে দগ্ধ পেয়ারী বেগম (৬৫) একজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি নোয়াখালী থেকে ছেলের বাসায় বেড়াতে এসেছিলেন।

সোমবার (৯ নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এর আগে রবিবার (৮ নভেম্বর) রাতে উত্তর কাট্টলি এলাকার মরিয়ম ভবনে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে দগ্ধ অবস্থায় আহতদের চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

দগ্ধ অন্যান্যরা হলেন-  মিজানুর রহমান (৪২), সাইফুল ইসলাম (২৫), বিবি সুলতানা (৩৬), মানহা (২), মাহের (৮), রিয়াজ (২২), জাহান (২১), সুমাইয়া (১৮)।

চমেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের চিকিৎসক ডা. রফিক উদ্দিন আহমদ বলেন, ‌’অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। বাকি আটজনের মধ্য একজন বাদে সাতজনের অবস্থা গুরুতর। এই সাতজনের সবার শ্বাসনালী পুড়ে গেছে। দুইজনকে ইমিডিয়েট আইসিইউ সাপোর্ট দেয়া প্রয়োজন। কিন্তু হাসপাতালে আইসিইউ খালি না থাকায় তাদের বিষয়ে বিকল্প চিন্তা করা হচ্ছে।’

আরএইচ

Print This Post