৩০ মিনিটেই মোবাইলের আইএমইআই পরিবর্তন, বিক্রি করে নামি শপিংমলে

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট : ১৩ জুলাই, ২০২০ সোমবার ০৫:১০ পিএম

উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে জীবিকার তাগিদে রিয়াজউদ্দিন বাজার এলাকায় মোবাইল মেরামতের দোকানে চাকরি নিয়েছিলেন।কয়েক বছরের মধ্যে রপ্ত করেন মোবাইলের যাবতীয় খুটিনাটি কাজ। রিয়াজউদ্দিন বাজার এলাকায় আসা বিভিন্ন চোরাই মোবাইল ও বিদেশ থেকে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আনা মোবাইলের লক খোলা ও আইএমইআই পরিবর্তনের কৌশলও আয়ত্ব করেন।বিদেশ থেকে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আনা মোবাইলগুলোর লক খুলে ও আইএমইআই পরিবর্তন করে তা বিভিন্ন নামিদামি দোকানেও বিক্রি করা হয়।- আহসান হাবিবকে গ্রেপ্তারের পর বেরিয়ে আসে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য।

রবিবার (১২ জুলাই) সন্ধ্যায় রিয়াজউদ্দিন বাজার তামাকুমণ্ডি লেইনের হাসিনা হক মার্কেটের নিচতলার একটি দোকান থেকে আহসান হাবিবকে গ্রেপ্তার করে কোতোয়ালী থানা পুলিশ।

এসময় তার কাছ থেকে দুইটি ল্যাপটপ, সিমকার্ড, কয়েকটি মোবাইল সেট, লক খোলার বিভিন্ন সফটওয়্যার ও সরঞ্জামসহ ডিভাইস জালিয়াতির কাজে ব্যবহৃত নানা জিনিস উদ্ধার করা হয়।

গেপ্তার আহসান হাবিব সাতকানিয়া উপজেলার সোনাকানিয়া হাতিয়ারপুল বাজার এলাকার আবুল কাশেমের পুত্র।

কোতোয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সজল দাশ বলেন, ‘গোপন সূত্রে খবর পেয়ে আহসান হাবিবকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আহসান হাবিব ডিভাইস জালিয়াতি চক্রের একজন সদস্য। বিভিন্ন চোরাই ও ছিনতাই হওয়া মোবাইলের আইএমইআই পরিবর্তন করে বিক্রি করে থাকে। এসব মোবাইল সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীরা ব্যবহার করে থাকেন।

এসআই সজল দাশ বলেন, মাত্র ৩০ মিনিটের ভেতর একটি মোবাইলের লক খুলে তার আইএমইআই পরিবর্তন ও অন্যান্য পরিবর্তনের মাধ্যমে একটি মোবাইলে পরিচয় চেঞ্জ করে ফেলতে পারে আহসান হাবিব। শুরুতে মোবাইল মেরামতের দোকানে চাকরি করতো। পরে মেরামতের কাজ শেখার পাশাপাশি নিজ উদ্যোগে ডিভাইস জালিয়াতির কাজও আয়ত্ব করে। অনেক দিন ধরে এসব কাজ করে আসছে।

রিয়াজউদ্দিন বাজার কেন্দ্রিক চোরাই ও ছিনতাই হওয়া মোবাইল এবং বিদেশ থেকে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আনা মোবাইল কেনাবেচার সঙ্গে জড়িত অন্তত ২৫ ব্যবসায়ীর বিষয়ে জানতে পেরেছি। তাদের নাম পেয়েছি। বিস্তারিত খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।’- যোগ করেন এসআই সজল দাশ।

সিটিজিসান ডটকম/সিএম

চট্টগ্রামের সকল সংবাদ সবার আগে আপনার ব্রাউজারে নোটিফিকেশন হিসেবে পেতে বাম পাশের লাল চিহ্নিত ‘বেল বাটনে’ ক্লিক করে এখনই সাবস্ক্রাইব করুন, আর হয়ে যান আমাদের নিয়মিত পাঠক।

 

Print This Post