‘বন্দুকযুদ্ধে’ প্রাণ গেল দুই মাদক কারবারির টেকনাফে

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট : ৭ জুলাই, ২০২০ মঙ্গলবার ০৪:০৯ পিএম

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই  মাদক কারবারি নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে এবং ঘটনাস্থল থেকে ৫ হাজার ইয়াবা, দুটি দেশীয় অস্ত্র, ৬ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৮ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ জুলাই) ভোরে উপজেলার মহেষখালী পাড়া এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধর’ ঘটনা ঘটে।

বন্দুকযুদ্ধে নিহতেরা হলো- টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়ন মৌলভী বাজার এলাকার মৃত সুলতান আহাম্মদের ছেলে সাদ্দাম হোসেন (২০) ও হোয়াইক্যং পশ্চিম মহেশখালীয়া পাড়া এলাকার আলী আহাম্মদের পুত্র আব্দুল জলিল (৩০)।

আহত তিন পুলিশ সদস্যরা হলেন-  এসআই মশিউর রহমান, কনস্টেবল অভিজিৎ দাশ ও এমরান হোসেন।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার ভোরে টেকনাফের মহেশখালীয়া পাড়া এলাকায় ইয়াবার একটি চালান পাচারের সংবাদে পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় মাদককারবারিরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এতে পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়। পরে পুলিশও অত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। হামলাকারীরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবদ্ধ অবস্থায় দুইজনকে উদ্ধার করে টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার হাসপতালে নেওয়া হলে সেখানে মারা যান। ঘটনাস্থল থেকে ৫ হাজার ইয়াবা, দুটি দেশীয় অস্ত্র, ৬ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৮ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ বলেন, ‘মাদক উদ্ধার অভিযানে গোলাগুলিতে দুই ডাকাত ও মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন। করোনাভাইরাস সামলাতে যখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন সেই সুযোগে কিছু মাদক ব্যবসায়ী ইয়াবার চালান পাচারের চেষ্টা করছিল।

মাদক ঠেকাতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।’- যোগ করেন এই কর্মকর্তা।

টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক প্রণয় রুদ্র বলেন, ‘পুলিশ গুলিবিদ্ধ দুইজনকে নিয়ে আসেন। তাদের শরীরে গুলির আঘাত ছিল। আহত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।’

সিটিজিসান ডটকম/আরএইচ/মুজো

Print This Post