ঢামেকে থাকা-খাওয়ায় কোনো দুর্নীতি হয়নি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট : ৩০ জুন, ২০২০ মঙ্গলবার ০৫:২২ পিএম

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসকদের থাকা-খাওয়ায় কোনো দুর্নীতি হয়নি বলে দাবি করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এছাড়াও তিনি বলেছেন করোনা চিকিৎসায় ভেন্টিলেটরের কোন প্রয়োজন নেই।

মঙ্গলবার (৩০ জুন)  জাতীয় সংসদে আইন মন্ত্রণালয়ের মঞ্জুরি দাবির ওপর ছাটাই প্রস্তাব নিয়ে সংসদ সদস্যদের বক্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকা মেডিকেল কলেজের থাকা-খাওয়ার বিষয় নিয়ে যে কথা হয়েছে আমি খোঁজ নিয়েছি। কাল রাতে আমি এটা দেখেছি। ৫০টি হোটেল ভাড়া হয়েছে। সেখানে তিন হাজার ৭০০ মানুষ এক মাস থেকেছে। প্রত্যেকটি রুমের ভাড়া এগারোশত টাকা। খাওয়ার খরচ যেটা বলা হয়েছে, তা টোলালি রং। সেখানে দিনের তিনটি মিলের জন্য খরচ ৫০০ টাকা হয়েছে।’

এর আগে ছাটাই প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালে জাতীয় পার্টি ও বিএনপির সংসদ সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কঠোর সমালোচনা করেন। গতকাল সোমবার সংসদে প্রধানমন্ত্রীও এ বিষয়ে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘২০ কোটি টাকা অস্বাভাবিক মনে হচ্ছে। এটা আমরা পরীক্ষা করে দেখছি। এত অস্বাভাবিক কেন হবে? যদি কোনো অনিয়ম হয় আমরা ব্যবস্থা নেব।’

ভেন্টিলেটরের প্রয়োজন নেই

সংসদে দাঁড়িয়ে আজ স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আইসিইউ নিয়ে অনেক কথা হলো। ভেন্টিলেটর নিয়ে বিরাট হৈ-চৈ। কিন্তু দেখা গেছে, ভেন্টিলেটরের কোনো প্রয়োজনই নেই। ভেন্টিলেটরে যারা গেছেন তাদের প্রায় সকলেই মৃত্যুবরণ করেছেন। আমাদের চারশ ভেন্টিলেটর আছে। এর মধ্যে ৫০টিও ব্যবহার হয়নি। সাড়ে তিনশত ভেন্টিলেটর খালি পড়ে আছে। কারণ তখণ মানুষ এটা জানতো না।

করোনার চিকিৎসা ব্যবস্থা ওষুধ নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বারবার তাদের অবস্থান পরিবর্তন করেছে’ বলেও স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ সময় দাবি করেন।

সিটিজিসান ডটকম/আরএইচ

Print This Post