কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতাদেরকে হত্যার হুমকি, থানায় জিডি

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট : ১৭ জুন, ২০২০ বুধবার ০৪:১০ পিএম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরসহ কোটা সংস্কার আন্দোলনের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দের মোবাইলে গুলি করে হত্যার হুমকি দিয়ে মেসেজ দেওয়া হয়েছে— এমন অভিযোগ করেছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতৃবৃন্দ।

বুধবার (১৭ জুন) রাত দেড়টায় (০১৬২৫-৯৯১৫৭৬) নম্বর থেকে মেসেজ দিয়ে এ হুমকি দেয়া হয়।

মেসেজে বলা হয়, ‘খোদার কসম তোদেরকে বাঁচতে দিবনা। তোদের আর লাঠি স্টিক দিয়ে হামলা করবোনা। এরপর থেকে ড্রাইরেক গুলি চলবে।’

গতকালও একই নাম্বার থেকেও হুমকি দেওয়া হয় তাদের কেন্দ্রীয় নেতা সহ শাখা কমিটির বেশ কিছু নেতাকে। যা নিয়ে ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড়।

এ নিয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতাকর্মীদের ফেইসবুক পোস্টের মাধ্যমে জানা যায়, এ হুমকির ঘটনায় তাঁরা যথেষ্ট বিরক্ত। দেশে বিদ্যমান ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন থাকলেও তার প্রয়োগ শুধুমাত্র আন্দোলনকারীদের উপর প্রয়োগ করা হয় বলে দাবি করেছে তাঁরা।

এসব হুমকির বিষয়ে চট্টগ্রাম মহানগরের ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক মুনতাসির মাহমুদ এ প্রতিনিধিকে বলেন, ‘তরুণদের নেতৃত্বে দেশে নতুন ধারার রাজনৈতিক দল গঠনের ঘোষণা দেয়ায় যাঁরা এতদিন ধরে দূর্ণীতি, স্বজনপ্রীতি আর স্বার্থের রাজনীতি করেছে তাঁরা সহ্য করতে পারতেছে না। যাঁরা কিনা দেশের মঙ্গল চায় না। কিন্তু আমাকে এবং আমার সহযোদ্ধাদের হত্যার হুমকি দিয়ে লাভ নেই রাজনৈতিক দল আমরা গঠন করবই এবং পিছপা হবো না।’

ছাত্র অধিকার পরিষদ, গোপালগঞ্জ জেলার আহ্বায়ক জোবায়ের শেখ সিটিজিসান ডটকমকে বলেন, ‘আমরা জাতীয় রাজনীতি তথা নির্বাচনে অংশগ্রহণের ঘোষণা দেয়ার পর থেকে পর পর দুইদিন একই নম্বর (০১৬২৫-৯৯১৫৭৬) থেকে আমাদের নেতৃবৃন্দকে ক্ষুদেবার্তার মাধ্যমে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। তাঁরা মূলত আমাদের কণ্ঠরোধ করতেই এসব ভয়-ভীতি দেখিয়ে যাচ্ছে।’

‘আসলে ভয়ভীতি দেখিয়ে ন্যায্য অধিকার আদায়ের আন্দোলন থেকে অতীতেও কেউ দাবিয়া রাখতে পারেনি, এখনও এবং ভবিষ্যতেও পারবে না। এনিয়ে ইতিমধ্যে আমাদের কেন্দ্রীয় কমিটি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে।’— যোগ করেন তিনি।

সিটিজিসান ডটকম/আরএইচ/আরএস

Print This Post