মানবসেবায় নিয়োজিত ‘ভূজপুর ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট’

অমিত কান্তি সিকদার, চবি | আপডেট : ১০ মে, ২০২০ রবিবার ১২:০২ পিএম

করোনার আক্রমনে যখন থমকে গেছে গোটা বিশ্ব এবং দেশ রয়েছে মুমূর্ষু অবস্থায় তখন মানবতার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেশের মানুষের পাশে দাঁড়ানো একজন সুনাগরিকের প্রধান দায়িত্বগুলোর মধ্যে অন্যতম। লকডাউনের ৪৫ তম দিনে শেষে দেশের চেহারা যেন পাল্টে গেছে আলোর গতিতে। নিজ নিজ কর্মস্থল থেকে ছিটকে পড়েছে মানুষ। পরিবার-পরিজন নিয়ে বিপদের দ্বারপ্রান্তে নিম্ন ও মধ্যবিত্ত আয়ের মানুষগুলো। এমতাবস্থায় বিপদগ্রস্ত মানুষগুলোকে সাহায্য করতে প্রতিনিয়ত গঠন করা হচ্ছে বিভিন্ন সংগঠন।

এমনই একটি সংগঠন হল ‘ভূজপুর ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট’।চট্টগ্রাম জেলায় অবস্থিত ফটিকছড়ি উপজেলার ভূজপুর থানার বিভিন্ন স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের নিয়েই গড়ে উঠেছে এই ট্রাস্ট। করোনা পরিস্থিতিতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর তাগিদেই গঠন করা হয়েছে সংগঠনটি। এটি সম্পূর্ণ অনুদাননির্ভর একটি ফান্ড।ফান্ড গঠনের পরপরই অনুদান সংগ্রহ শুরু করে এর কর্মীরা এবং শুরুতেই মোহাম্মদ সোয়াইব উল্লাহর ৫ লক্ষ টাকার অনুদান নিয়ে প্রথম পর্যায়ের ত্রাণ কার্যক্রম শেষ করেছে ‘ভূজপুর ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট’৷

ভূজপুর থানার বাগানবাজার ও সুয়াবিলসহ মোট ৬ টি ইউনিয়নের ৫৪ টি ওয়ার্ডের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ১০০০ পরিবারকে উপহার সামগ্রী পৌঁছে দেয় ট্রাস্টের স্বেচ্ছাসেবীরা। রমজানের রোজা রেখে, প্রখর রোদ্রতাপ উপেক্ষা করে ট্রাস্টের উপহার পৌঁছে দেওয়ার কাজ সম্পন্ন করে স্বেচ্ছাসেবীরা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ডিস্ট্রিবিউশন কমিটির কেন্দ্রীয় ও ইউনিয়ন প্রতিনিধিবৃন্দ।এছাড়াও সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন “ভূজপুর স্টুডেন্ট’স ফোরাম,চবি”।

প্রথম পর্যায়ের ত্রান কার্যক্রম শেষ হতে না হতেই ইতোমধ্যেই দ্বিতীয় পর্যায়ের অনুদান সংগ্রহের জন্য কাজ শুরু করেছে “ভূজপুর ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট”।
ভূজপুর থানার সুপ্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিবর্গ ও প্রশাসনকে তাদের এই ত্রান কার্যক্রমের লক্ষ্য পূরনে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ট্রাস্ট কমিটি।

সিটিজিসান ডটকম/আরএইচ

Print This Post