মুরাদপুরে আহত ৪ র‌্যাব সদস্যকে ঢাকায় স্থানান্তর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | সিটিজিসান.কম

চট্টগ্রাম: মহানগরের মুরাদপুর এলাকায় র‌্যাবের মাদকবিরোধী অভিযানে অসিম রায় বাবু প্রকাশ ডাইল বাবু নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহতের ঘটনায় গুলিতে আহত র‌্যাবের চার সদস্যকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের হেলিকপ্টারে করে ঢাকা সিএমএইচ-এ নিয়ে যাওয়া হয় বলে র‌্যাব সূত্র জানিয়েছে।

আহতরা হলেন, স্কোয়াড্রন লিডার সাফায়েত জামিল ফাহিম, মেজর মেহেদী হাসান, সৈনিক আরিফ ও ল্যান্স কর্পোরাল শহীদ। তাদের চট্টগ্রাম সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে মুরাদপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত বাবু চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার পূর্ব চাম্বল গ্রামের গুরু সদয় রায়ের ছেলে। তার বিরুদ্ধে নগরীর কোতোয়ালী থানায় তিনটি মামলা রয়েছে, এরমধ্যে তিনটি মাদক মামলা। বাবু যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। গত সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৩১ নম্বর আলকরণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদের স্বতন্ত্র প্রার্থীও ছিলেন বাবু।

এবিষয়ে র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক মিমতানুর রহমান বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে মুরাদপুর এক নম্বর রেল গেইট এলাকায় র‌্যাব একটি প্রাইভেট কারকে থামানোর সংকেত দেয়। কিন্তু গাড়িটি না থেমে উল্টো র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়া হয়। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছুঁড়ে।

‘এ সময় উভয় পক্ষের গুলিতে একজনের মৃত্যু হয়েছে। মাদক ব্যবসায়ীরে গুলিতে আহত হন চার র‌্যাব সদস্য। ঘটনাস্থলে একটি বিদেশি পিস্তল ও বিপুল পরিমাণ ইয়াবা উদ্ধার করেছে।’

র‌্যাব কর্মকর্তা মিমতানুর রহমান বলেন, আহত তিন র‌্যাব সদস্য মেজর মেহেদী হাসান, সৈনিক আরিফ ও ল্যান্স কর্পোরাল শহীদের শরীরে গুলি বের করতে বড় ধরণের অপারেশন করতে হবে।

সিএস/সিএম

Print This Post