সীতাকুণ্ডে মায়ের সাথে অভিমান করে কিশোরীর আত্মহত্যা

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি | আপডেট : ৬ আগস্ট, ২০২০ বৃহস্পতিবার ১০:৩০ পিএম

সীতাকুণ্ড উপজেলার কিশোরী সুরাইয়া আকতার। বয়স তার মাত্র ১৪। এই বয়সেই মায়ের সাথে অভিমান করে পাড়ি জমিয়েছে না ফেরার দেশে। যার ফলে এ উপজেলায় আত্মহত্যার মিছিলে যোগ হল আরও একটি নাম।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) বিকেল ৫টার দিকে ছলিমপুর ৯নং সমাজের রিনার ঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সুরাইয়া আকতার একই এলাকার বাসিন্দা আব্দুল খালেকের কন্যা। তার গ্রামের বাড়ি বড়গুনা জেলায়।

জানা যায়, সুরাইয়া আক্তারকে তার মা বকাবকি করায় ক্ষোভে সে ঘরের তিরের সাথে গলায় উড়না পেঁছিয়ে আত্নহত্যা করে।

খবর পেয়ে সীতাকুণ্ড মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফিরোজ হোসেন মোল্লা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে।

ওসি ফিরোজ মোল্লা জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় থাকা এক কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশটি উদ্ধার করে ময়দা তদন্তের জন্য চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জঙ্গল ছলিমপুর সমাজ পাড়ার সাংগঠনিক এক নাম্বার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহবায়ক মো. ইস্রাফিল বলেন, ‘সুমাইয়ারা পরিবারসহ এখানে খাস জায়গায় বসবাস করছে অনেকদিন ধরে। সে তার মার সাথে রাগ করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করে। আমি বিষয়টি থানায় জানালে ওসি ফিরোজ হোসেন মোল্লা নিজে ঘটনাস্থলে এসে লাশটি উদ্ধার করেন।’

সিটিজিসান ডটকম/আরএইচ/এনওকে