বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দু’রোহিঙ্গা নিহত টেকনাফে

টেকনাফ প্রতিনিধি | আপডেট : ০৬ জুলাই, ২০২০ সোমবার ০১:২০ এএম

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হ্নীলার হোয়াব্রায় পয়েন্টে মাদকের চালান নিয়ে অনুপ্রবেশকালে বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সঙ্গে দু’রোহিঙ্গা মাদককারবারী নিহত হয়েছে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ১ টি বিদেশি পিস্তল ও দুই রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।

সোমবার (৬ জুলাই) ভোরে সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বিজিবির দুই সদস্য আহত হয়েছেন বলে দাবী করেন টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়ন কর্তৃপক্ষ।

নিহতরা হলেন, উখিয়া উপজেলার কুতপালং ৫নং ক্যাম্পের ব্লক-জি-২/ই এর শেড নম্বর ৪৫১২৮৪ এর বাসিন্দা মো. শফির পুত্র মো. আলম (২৬) ও ২ নম্বর বালুখালী ১৮ নম্বর ক্যাম্পের ব্লক নং- কে/৩ এর বাসিন্দা মো. এরশাদ আলীর পুত্র মোঃ ইয়াছিন (২৪)।

জানা গেছে, সোমবার ভোরের দিকে টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের হ্নীলা বিওপির একটি বিশেষ টহলদল হোয়াব্রাং সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে মাদকের চালান খালাসের খবর পেয়ে অভিযানে যায়। সেখানে পৌঁছার কিছুক্ষণ পর ৩/৪ জন লোক বস্তা নিয়ে নাফনদী থেকে কিনারায় আসতে দেখে বিজিবি তাদের চ্যালেঞ্জ করলে মাদককারবারীরা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করলে ল্যান্স নায়েক মো. আব্দুল কুদ্দুস ও নায়েক শাকের উদ্দিন আহত হয়ে। পরে বিজিবি জওয়ানেরাও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ গুলি চালালে দুই মাদককারবারি গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাদের হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ১ টি বিদেশি পিস্তল ও দুই রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. ফয়সল হাসান খান (পিএসসি) বলেন, ‘এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারার পৃথক আইনে মামলা দায়ের হয়েছে।’

সিটিজিসান ডটকম/সিএস