যে কোন দুর্যোগে বিএনপি নেতাকর্মীরা মানুষের পাশে থাকে : ডা. শাহাদাত

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট : ৫ জুলাই, ২০২০ রবিবার ০৯:২০ পিএম

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন, ‘বিএনপি গত ১৪ বছর রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার বাইরে। এর উপরে সরকারের দমন, নিপীড়ন ও হামলা, মামলায় জর্জরিত নেতাকর্মীরা এখন নিঃস্ব প্রায়। তারপরও যে কোন দুর্যোগ মুহুর্তে জনগণের দল হিসেবে বিএনপি নেতাকর্মীরা মানুষের পাশে থাকে।’

রবিবার (৫ জুলাই) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।

ডা. শাহদাত হোসেন বলেন, ‘করোনাকালে চট্টগ্রামের জোনভিত্তিক ওয়ার্ডে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত আছে। অথচ চট্টগ্রামবাসী সরকারি দলের পক্ষ থেকে প্রত্যাশা করেছিল অনেক বেশী। কারণ চট্টগ্রাম হচ্ছে অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি। কিন্তু সেই হিসেবে চট্টগ্রামের মানুষ কিছুই পায়নি।’

সরকার চট্টগ্রামের প্রতি বিমাতাসূলভ আচরণ করেছে অভিযোগ করে ডা. শাহাদাত বলেন, ‘চট্টগ্রামবাসীর পক্ষে আওয়ামী লীগ নেতাদের মাঠে দেখা যায়নি। চট্টগ্রামের বিপর্যস্ত স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নয়ন ও থোক বরাদ্ধ থেকে ৫০০ কোটি টাকা অনুদানের বিষয়ে তাদের কোন বক্তব্য বিবৃতিও দেখা যায়নি।’

তিনি বলেন, ‘করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর থেকেই খাদ্যসামগ্রী, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও গণসচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ শুরু করে বিএনপি। মানবিক কারণে মানুষকে সহায়তা করতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়ে বিএনপির অনেক নেতাকর্মী মারা গেছেন। অনেকেই আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আছেন। এখন বিএনপির ত্রাণ বিতরণ নিয়ে কেউ যদি সমালোচনা করে সেটা হাস্যকর ব্যাপার।’

বিএপি নেতা ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, যারা সমালোচনা করছে তারা এই দুঃসময়ে চট্টগ্রামের জন্য কিছুই করতে পারেনি। করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরু হওয়ার পর ২৫ মার্চ থেকে আজ পর্যন্ত চট্টগ্রামে বিএনপির পক্ষ থেকে ১ লক্ষ ৩২ হাজার ৩২১টি অসহায় হতদরিদ্র পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ডা. শাহাদাত বলেন, ‘চট্টগ্রামের করোনা রোগীর চিকিৎসার জন্য বিএনপির পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে বাকলিয়া এলাকায় ১০০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টারের কার্যক্রম চলছে। যা অচিরেই উদ্বোধন করা হবে। তাছাড়া মহানগর বিএনপির দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবনে মেডিসিন ব্যাংক ও অক্সিজেন ব্যাংক চালু করা হচ্ছে।’

সিটিজিসান ডটকম/সিএস