করোনায় মারা গেলেন চট্টগ্রামের ১৯ জন

ডেস্ক নিউজ | আপডেট : ৩০ এপ্রিল, ২০২০ বৃহস্পতিবার ১২:২৫ পিএম

সৌদি আরবে করোনা সংক্রমণের এই পর্যন্ত মৃতের‌ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫৭ জনে। এদের মধ্যে ৪৬ জনই প্রবাসী বাংলাদেশি। এদের মধ্যে ১৭ জনই চট্টগ্রামের লোক, দুজন কক্সবাজারের।

এদিকে সৌদি আরবে করোনাভাইরাসে যাদের মৃত্যু ঘটছে, তাদের প্রায় ৩০ ভাগই বাংলাদেশি। মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২১ হাজার ৪০২ জন।

সৌদি আরবে চট্টগ্রামের বাসিন্দারা হলেন, চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার ভোয়ালিয়া পাড়ার মোহাম্মদ জসিম, চন্দনাইশের মধ্য হাশিমপুর গ্রামের মোহাম্মদ জমির উদ্দিন, লোহাগাড়া উপজেলার উত্তর আমিরাবাদের শান্তিপুর পাড়ার মোরশেদুল আলম, লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি গ্রামের রেজাউল হক, সাতকানিয়া উপজেলার দক্ষিণ গারাঙ্গিয়া গ্রামের ফরিদুল আলম এবং লোহাগাড়া উপজেলার আধুনগর সরিমান পাড়ার মজিবুর রহমান।

এছাড়া রয়েছেন কক্সবাজারের দুজন- হ্নীলার পানখালী গ্রামের নিছার আহমেদ এবং রামুর নোয়াপাড়া গ্রামের হাফেজ রুহুল আমিন।

মদিনায় যারা মারা গেলেন, লোহাগাড়া উপজেলার বড় হাতিয়ার চোখফেরানো দুল্লভের পাড়ার মোহাম্মদ হাসান, সাতকানিয়া উপজেলার ছদাহা আজিমপুর গ্রামের মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, সাতকানিয়া উপজেলার এওচিয়া ইউনিয়নের মোহাম্মদ নাসির, বাঁশখালী উপজেলার পালেগ্রামের মো. রহিম উল্লাহ, হাটহাজারী উপজেলার দুয়ারা গ্রামের মোহাম্মদ শফিউল আলম, চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহরের এমএইচএম ওবায়দুর রহমান চৌধুরী, চন্দনাইশের রাশেদ আলম, রাউজান উপজেলার কোতোয়ালী ঘোনা গ্রামের কাশেম ফকির বাড়ির আহমদ হোসাইন, সাতকানিয়ার সোনাকানিয়া ইউনিয়নের মির্জাখীল গ্রামের মোহাম্মদ ইসলাম এবং বাঁশখালী উপজেলার শীলকুপ গ্রামের রেজাউল হক।

অন্যদিকে জেদ্দা শহরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু ঘটেছে সাতকানিয়ার এওচিয়া ইউনিয়নের আবদুল আজিজের।

সিটিজিসান ডটকম/সিএস