ছাত্রলীগের হাতে লাঞ্ছিত মোছলেম উদ্দিন

111

চট্টগ্রাম :: নগরীর লালদীঘি ময়দানে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময় অনুষ্ঠান শেষে ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মীর হাতে লাঞ্ছিত হয়েছেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদ। আজ শনিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটেছে।

মিডিয়ায় বক্তব্য দেয়ার সময় বিরক্ত করায় এক ছাত্রলীগ কর্মীকে ধাক্কা দেয়াকে কেন্দ্র করে লাঞ্ছিত হন মোছলেম উদ্দিন।

দেখা গেছে, মাঠ থেকে বেরুবার সময় কয়েকজন নেতাকে গণমাধ্যমের কর্মীরা বিশেষত টেলিভিশন চ্যানেলের রিপোর্টাররা ঘিরে ধরেন। প্রথমে তারা ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এবং চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের প্রশাসক ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ সালামের বক্তব্য নেন। এরপর মোছলেম উদ্দিন আহমেদ নিজ থেকেই কথা বলার জন্য গণমাধ্যমের সামনে আসেন।

মোছলেম উদ্দিনের বক্তব্য শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে হুড়োহুড়ি, চিৎকার শুরু হয়। মাথায় লাল টুপি দেয়া কয়েকজন তরুণ মোছলেম উদ্দিনকে ধাক্কা দেয়। এসময় কয়েকজন তাকে মারতে উদ্যত হয়। কয়েকজন এসে মোছলেম উদ্দিনকে রক্ষার চেষ্টা করলে তারাও রোষানলের শিকার হন। আনুমানিক ৩০-৩৫ জন তরুণকে মোছলেম উদ্দিনকে উদ্দেশ্য করে ‘দালাল’, ‘মোছলেম সওদাগর’, ‘দুর্নীতিবাজ’ এই ধরনের কটু মন্তব্য ছুঁড়তে দেখা যায়।

ধাক্কাধাক্কির এক পর্যায়ে মোছলেম উদ্দিন কয়েকবার নিজেই সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে প্রতিরোধের চেষ্টা করেন। কিন্তু উত্তেজিত তরুণরা বারবার তার দিকে তেড়ে যাবার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে মহানগর আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমানসহ কয়েকজন নেতাকর্মী এসে মোছলেম উদ্দিনকে কর্ডন করে মাঠের বাইরে নিয়ে যান।

জানতে চাইলে নগর আওয়ামী লীগ নেতা মশিউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। মোছলেম উদ্দিনকে লাঞ্ছিত করা তরুণরা নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর নিয়ন্ত্রিত ওমরগণি এমইএস কলেজের ছাত্র বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। মোছলেম উদ্দিনের বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি কোন কথা বলেননি।

সিটিজিসান.কম/রবি