এবারও চট্টগ্রামের জশনে জুলুস’র নেতৃত্বে তিন পাকিস্তানী

ঢাকা : সোমবার, রোববার ৩, ২০১৯, ০৮:১০ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিগত বছরের ন্যায় এবার চট্টগ্রামের জশনে জুলুসে নেতৃত্ব দেয়ার জন্য উড়িয়ে আনা হচ্ছে তিন পাকিস্তানীকে। পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে বিশাল সমাগম ঘটিয়ে আগামী ১০ নভেম্বর জশনে জুলুস উদযাপন করবে বৃহত্তর চট্টগ্রামের মাজার অনুসারিদের সংগঠন আনজুমান-এ রহমানিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট। আর এদিন সংবাদ সংগ্রহের জন্য সাংবাদিকদের হেলিকপ্টার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন পিএইচপি ফ্যামিলির চেয়ারম্যান ও আনজুমানের উপদেষ্টা সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। রোববার (৩ নভেম্বর) সকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন সুফি মিজান।

তিনি বলেন, এবার জুলুসে ৬০ লাখের বেশি লোকের সমাগম হবে। জুলুসের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত যাতে সাংবাদিকরা কাভার করতে পারেন সে লক্ষ্যে পিএইচপির হেলিকপ্টারটি প্রেসক্লাবকে দেয়া হবে। ওই হেলিকপ্টারে একসঙ্গে ৪জন সাংবাদিক বসতে পারবেন। সুফি মিজান বলেন, এবার জুলুসে নেতৃত্ব দেবেন পাকিস্তানী বংশদূত দরবারে আলিয়া কাদেরিয়া সিরিকোট শরিফের সাজ্জাদানশিন আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ তাহের শাহ।

একই সঙ্গে উপস্থিত থাকবেন শাহজাদা আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ কাসেম শাহ ও হামেদ শাহ। জামেয়া আহমদিয়া আলিয়া মাদ্রাসা সংলগ্ন আলমগীর খানকাহ থেকে সকাল ৯টায় জুলুস বের হবে। বিবিরহাট, মুরাদপুর, মির্জাপুল, কাতালগঞ্জ, চকবাজার, প্যারেড কর্নার, সিরাজউদ্দৌলা সড়ক, আন্দরকিল্লা, চেরাগি পাহাড়, প্রেসক্লাব, কাজীর দেউড়ি, আলমাস, ওয়াসা, জিইসি, মুরাদপুর হয়ে জামেয়া মাদ্রাসা মাঠে মিলিত হবে।

নগরের কাজীর দেউড়ি মোড়ে অস্থায়ী মঞ্চে আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ তাহের শাহ বক্তব্য দেবেন এবং সেখানে দেশের শান্তি সমৃদ্ধি কামনায় মোনাজাত করবেন। পিএইচপি ফ্যামিলির চেয়ারম্যান সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে বড় চট্টগ্রামের জশনে জুলুস গিনেস বুক রেকর্ডে স্থান পাওয়ার যোগ্যতা রাখে।

জেএইচ/সিএস

Leave a Reply