ধর্ষণের অভিযোগে আরও এক বাবা আটক

untitled-1-jpg-ed-87314

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
পশ্চিমবঙ্গে রাম রহিমের কুকীর্তি নিয়ে যখন দেশ তোলপাড়, ঠিক তখন ফের এরকম আর একটি ঘটনা প্রমাণ করল, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের আড়ালে বহু জায়গায় কত খারাপ কাজ-কর্ম কিছু ঘটছে।

জানা গেছে পুলিশ জানান, বনগাঁর ওই তরুণী থাকতেন মায়ের সঙ্গে। বাবা সংসার ছেড়ে ছেড়েছেন। ২৮ বছরের মেয়েকে বৃন্দাবনের ওই আশ্রমে রেখে আসার কথা ভাবেন মা। এক বছর আগে তরুণী যান ওই আশ্রমে।

আশ্রমের সাধুবাবা গোবিন্দ মোহান্ত তরুণীকে ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ উঠে। মেয়েটির মুখ-হাত বেঁধেও তাঁর উপরে যৌন নির্যাতন চালানো হয়েছিল। মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে জানাজানির ভয়ে গোবিন্দ মেয়েটিকে অন্য এক মহিলা মারফত বনগাঁ স্টেশনে রেখে যায়। মেয়েটিকে উদ্ধার করে পুলিশ।

এবং ওই সাধুর বিরুদ্ধে মামলাও করে পুলিশ। আনন্দবাজার প্রত্রিকায় প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এসব কথা জানা যায়।

বৃহস্পতিবার বনগাঁ থানার তদন্তকারী দল মথুরা থেকে সাধুবাবাকে আটক করে। গোবিন্দর বাড়ি বর্ধমানের ভাতারে।

পুলিশের দাবি, প্রাথমিক জেরায় গোবিন্দ ধর্ষণের কথা স্বীকারও করেছে। মেয়েটিকে সে দু’বার ধর্ষণ করেছে বলে জানিয়েছে।