এবার নিউ ইয়র্কে সৌদির দুই বোনের মরদেহ উদ্ধার

অনলাইন | সিটিজিসান.কম

তালা ফারিয়া (বামে) ও রোতানা ফারিয়া

ঢাকা | ১ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ১১:৫৫ এএম |

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যার ঘটনার রেষ কাটতে না কাটতেই এবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক থেকে সৌদি নাগরিক দুই বোনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

এক সপ্তাহ আগে শহরের হাডসন নদী থেকে টেপ দিয়ে পরস্পরের সঙ্গে বাঁধা দুই বোনের লাশ উদ্ধার করা হয়। কিন্তু মাত্র দুই দিন আগে মার্কিন গণামধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমসে খবরটি প্রকাশ হয়।

আর গতকাল বুধবার ইরানি সরকারি গণমাধ্যম প্রেসটিভি এ খবর প্রকাশ করেছে।

খবরে বলা হয়েছে, হাডসন নদীর ম্যানহাটন সিটির পশ্চিম তীরে গত ২৪ অক্টোবর ১৬ বছর বয়সী তালা ফারিয়া এবং ২২ বছর বয়সী রোতানা ফারিয়ার লাশ পাওয়া যায়।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, হতভাগ্য দুই বোন সৌদি আরব থেকে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে দেশটিতে আশ্রয় লাভের চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু ওয়াশিংটনের সৌদি দূতাবাস তাদেরকে আমেরিকা ত্যাগ করে সৌদি আরবে ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল বলে তাদের মা জানিয়েছেন।

প্রেসটিভি বলছে, এক সপ্তাহেরও বেশি সময় আগে দুই সৌদি বোনের লাশ উদ্ধার করা হলেও এখন পর্যন্ত তাদের মৃত্যুর কোনো কুলকিনারা করতে পারছে না মার্কিন পুলিশ। সম্পূর্ণ পোশাক পরিহিত এবং পরস্পরের দিকে মুখ করে তাদের দেহ টেপ দিয়ে প্যাঁচানো ছিল।

কীভাবে দুই বোনের মৃত্যু হয়েছে সে সম্পর্কেও এখনো কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি মার্কিন পুলিশ।

নিউ ইয়র্কের সৌদি কনস্যুলেট জেনারেল এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, দুই বোন তার এক ভাইয়ের সঙ্গে ওয়াশিংটনে বসবাস করছিল। দুই বোনের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনে সাহায্য করার জন্য সৌদি আরবের পক্ষ থেকে একজন আইনজীবী নিয়োগ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, তুরস্কে সৌদি কনস্যুলেটে রাজতন্ত্রবিরোধী সাংবাদিক জামাল খাসোগির হত্যাকাণ্ড নিয়ে যখন রিয়াদ তীব্র আন্তর্জাতিক চাপের মুখে তখন আমেরিকায় আশ্রয়প্রার্থী দুই সৌদি বোনের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটলো।

অনেক নাটক শেষে খাসোগিকে হত্যার কথা স্বীকার করে সৌদি আরব। কিন্তু এখনো ওই হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে বহু প্রশ্নের উত্তর মেলেনি।

সিএস/সিএম/এসআইজে