রাউজানে পুর্বগুজরায় সড়ক উন্নয়নের দাবি এলাকাবাসীর

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৪, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক :: রাউজানে উপজেলার ১০ নং পুর্বগুজরা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড এলকার বেশ কয়েটি সড়কের উন্নয়নের কার্যক্রমের মধ্যে কোন কোন সড়কের উন্নয়ন হয়েছে আবার কিছু সড়কে কার্যক্রম চলমান রয়েছে। পুর্বগুজরা এলাকার কান্ত চৌকিদারের এলাকায় জমিনের মাঝখানে ধীরার বাড়ী নামের একটি সংযোগ সড়কের উন্নয়নের কোন কুলকিনারা নেই বলে জানান ভুক্তভোগী এলাকাবাসী।

মুল সড়ক থেকে জমিনের মধ্যে দিয়ে যাওয়া ধীরার বাড়ীর প্রায় ৪০০ ফুট দৈঘ্য ও ৮ ফুট প্রস্থ এই কাঁচা রাস্তাটিতে উন্নয়নে কোন ছোঁয়া লাগেনি। ধীরার বাড়ীর এই কাঁচা রাস্তা বর্ষাকালে কোমর পরিমাণ পানিতে তলিয়ে যায়। বর্ষার মৌসুম ছাড়াও সামান্য বৃষ্টিতে কাদাযুক্ত এই সড়কে চলাচলে অতিষ্ঠি এলাকাবাসী।

উল্লেখ্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌঁধুরী পায়ে হেটে রাউজান পরিদর্শন কালে মনা বৈদ্যের বাড়ীর আগে নতুন বাজার যাতায়াতের কালভার্টের সামনে গেলে এলাকাবাসী তাকে জানান কালভার্ট থেকে ৫০ ফুট আগে জমিনের মাঝখান দিয়ে যাওয়া ধীরার বাড়ীর সড়কের বেহাল দশার কথা । তিনি নির্বাচনের পর ৪০০ ফুটের কাঁচা রাস্তার উন্নয়নে আশ্বাস দিলে তা এখনও বাস্তবায়ন হয়নি।

পুর্বগুজরা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের স্থায়ী বাসিন্দা সার্বজনীন শ্রী শ্রী শিব মন্দির কমিটির দপ্তর সম্পাদক রাজীব কান্তি দে এলাকাবাসীর পক্ষে চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন,আমরা কান্ত চৌকিদারের বাড়ীর বাসিন্দারা দীর্ঘদিন ধরে ভুক্তভোগী । মনা বৈদ্যের বাড়ীর আগে নতুন বাজার যাতায়াতের জন্য যে কালভার্ট করা হয়েছে তার আগে জমিনের মাঝখান দিয়ে ধীরার বাড়ীর নামের সড়কের বেহাল দশা বছরের পর বছর ধরে। রাস্তাটি নিচু, মাটি ভরাট খুবই প্রয়োজন। এই রাস্তা দিয়ে বড়–য়া পাড়ার জোয়াদ্দারের বাড়ীর জনসাধারণ স্কুলের শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেনী পেশার মানুষের যাতায়াত হলেও গুরুত্বপূর্ণ রাস্তারটি অবহেলিত। বর্ষাকালে আমাদের জনদুর্ভোগ বেড়ে যায়।

নির্বাচনের আগে সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌঁধুরী আমাদেরকে আশ্বাস দিয়েছিলেন বাড়ির এই কাচাঁ রাস্তাটির উন্নয়ন হবে বলে। রাস্তার উন্নয়নে আমরা সাংসদের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ বিষয়ে ১০ নং পুবগুজরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্বাস উদ্দিন আহমেদ জানান, ইতিমধ্যে রাউজান ১০ নং পুর্বগুজরা ইউনিয়নের বেশ কয়েটি সড়কের উন্নয়ন হয়েছে।

নির্মাণ করা হয়েছে ব্রীজ ও কালভার্টের। জলাবদ্ধতা নিরসনে খালের প্রসস্ত বাড়ানো হয়েছে। তবে কান্ত চৌকিদারের বাড়ী এলাকায় ধীরার বাড়ী নামের সংযোগ সড়কের বিষয়টি আমি অবগত নয়। সড়কের বিষয়ে খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।