দুর্নীতির ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতিতে থাকব: ভূমিমন্ত্রী

অনলাইন | সিটিজিসান.কম

চট্টগ্রাম | ১২ জানুয়ারি ২০১৯, শনিবার ০৩:৩০ পিএম |

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেন, আমি জনগণের মন্ত্রী। জনগণের সেবা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী আমাকে মন্ত্রীর দায়িত্ব দিয়েছেন। তাই জনগণের মধ্যে যেকেউ প্রশ্ন করলে জবাব দিতে বাধ্য থাকবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

শনিবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি একথা বলেন।

ভূমির অফিসের কর্মকর্তা উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ভূমি অফিস কেউ দুর্নীতির করার চিন্তা থাকলে আগে থেকে ভাল হয়ে যান। ধরা পড়লে কিন্তু শাস্তি পেতে হবে। এ ছাড়া কারা ঘুষ নিচ্ছে, তার যথাযথ প্রমাণ রাখবেন, যাতে অপরাধী ধরতে সহজ হয়। সারাদেশে দুর্নীতির ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতিতে থাকবো।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ২০১৪ সালে ভূমি প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেন। তখন অভিজ্ঞতা না থাকার সত্তে¡ও কাজ চালিয়ে গেছি দুর্নীতির বিরুদ্ধে এবং নিজস্ব উদ্যোগে অনেক কাজ করেছি। ওই সময় অনেক ভালো কাজ করেছি। ভূমি মন্ত্রণালয়ে জটিলতা, হয়রানি কাটাতে অটোমেশনের উদ্যোগ নিয়েছিলাম। এর সুফল পেতে থাকবে মানুষ।

তিনি বলেন, দুর্নীতি আমাকে স্পর্শ করতে পারেনি, বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবো। প্রধানমন্ত্রী আমাকে পূর্ণমন্ত্রী করে পুরস্কার দিয়েছেন। আমি সততা, দক্ষতা, স্বচ্ছতার মধ্যদিয়ে কাজ করবো।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ভূমি মন্ত্রণালয় একসময় ছিল ডাম্পিং স্টেশন। সুশাসন নিশ্চিত করতে পারলে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনতে পারবো।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি কলিম সরওয়ার, সাবেক সভাপতি আলী আব্বাস, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামল, প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, সিইউজের সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক শহীদুল্লাহ শাহরিয়ার, নির্বাহী সদস্য শহীদ উল আলম, ম. শামসুল ইসলাম, সিনিয়র সাংবাদিক পঙ্কজ কুমার দস্তিদার, তপন চক্রবর্তী, মোস্তাক আহমেদ প্রমুখ।

সিএস/সিএম/এসআইজে