কোটা সংস্কার, ৭ মে পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত

অনলাইন ডেস্ক : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে বৈঠকের পর বলেছেন, গতকাল ভাইস চেন্সেলরের সাথে কোটার কোনো সম্পর্ক নেই। তার ওপর কেনো হামলা? তাদের মধ্যে অ্যাকশন নেওয়া হবে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, যারা ইনোসেন্স তাদের ছেড়ে দেওয়া হবে। যারা আহত হয়েছে আমরা চিকিৎসার ব্যবস্থা করবো। কার্পণ্য করবো না।

আজ সোমবার সন্ধ্যায় সচিবালয়ে কোটা সংস্কারের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, তরুণদের দাবি যৌক্তিক হলে তা উপেক্ষা করা হবে না। আগামী মে মাসের ৭ তারিখ পর্যন্ত সরকার বিষয়টি নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবে। এ পর্যন্ত তারা তাদের আন্দোলন স্থগিত রাখবে।

সোমবার বিকালে আন্দোলনকারীদের অন্যতম সমন্বয়ক হাসান আল মামুনসহ শিক্ষার্থীদের ২০ সদস্যের প্রতিনিধি দল ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বৈঠক করেন।

বৈঠকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, এনামুল হক শামীম, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, মুক্তযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, উপ দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এস এম কামাল হোসেন, ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া উপস্থিত ছিলেন।