কলকাতায় মুসলিম মেয়র

অনলাইন | সিটিজিসান.কম

কলকাতা | ২৪ নভেম্বর ২০১৮, শনিবার, ১১:১০ এএম |

কলকাতার নতুন মেয়র হিসেবে ফিরহাদ হাকিমের নাম ঘোষণা করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী।

বিবিসি জানায়, ববি হাকিম নামে বেশি পরিচিত এই নেতা আগে থেকেই রাজ্যের নগরোন্নয়ন ও পৌর দপ্তরের মন্ত্রী ছিলেন। এর আগে মেয়র পদ থেকে ইস্তফা দেন শোভন চ্যাটার্জী। ব্যক্তিগত সম্পর্কের টানাপোড়েনের ফলে কাজে অমনোযোগী হয়ে পড়ছিলেন, এই অভিযোগে মমতা ব্যানার্জী তাকে পদত্যাগ করতে বলেছিলেন।

নতুন মেয়র বেছে নেওয়ার জন্য দলীয় কাউন্সিলরদের বৈঠক আগেই ডাকা হয়েছিল, যেখানে মমতা ব্যানার্জী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারা। সেই বৈঠকেই মমতা জানান নতুন মেয়রের নাম।

১৯৪৭ সালে ভারতের স্বাধীনতার আগে পাঁচজন মেয়র ছিলেন মুসলিম, যাদের মধ্যে ছিলেন শের-এ-বাংলা এ কে ফজলুল হক। কিন্তু তারপর থেকে কখনও কোনো মুসলিম নেতা কলকাতার মেয়র পদে বসেননি।

ফিরহাদ হাকিম দক্ষিণ কলকাতার চেতলা অঞ্চলের মানুষ। কংগ্রেসের রাজনীতি করতে করতেই মমতা ব্যানার্জীর ঘনিষ্ঠ হয়ে ওঠা এবং গত শতাব্দীর নয়ের দশকের শেষদিকে কলকাতা করপোরেশনের ওয়ার্ড কাউন্সিলর হিসেবে প্রথম ভোটে জেতা।

করপোরেশনের গণ্ডি ছাড়িয়ে পৌঁছে যান বিধানসভায়। ভোটে জিতে বিধায়ক হওয়ার পরে হয়েছেন মন্ত্রী।

পাকিস্তানের ডন পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ফিরহাদ হাকিম বলেন, তার দাদু বিহারের গয়া জেলা থেকে কলকাতায় এসে ব্যবসা শুরু করেন। বাবা ছিলেন কলকাতা পোর্ট ট্রাস্টের আইন কর্মকর্তা। আর মা ছিলেন কলকাতার একটি স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষিকা।

ববি ধর্মে মুসলমান ঠিকই, নিয়মিত নামাজ পড়েন, গতবছর হজ করে এসেছেন। কিন্তু ওর মধ্যে হিন্দু-মুসলিম প্রসঙ্গটা একেবারেই নেই। ওর মা ছিলেন পূর্ববঙ্গীয় হিন্দু পরিবারের মানুষ, বোনের বিয়ে দিয়েছেন হিন্দু পরিবারে।

সিএস/সিএম/এসআইজে