‘এসএমএস’-এ বিবাহবিচ্ছেদের বার্তা পাবেন সৌদি নারীরা

অনলাইন | সিটিজিসান.কম

ঢাকা | ৬ জানুয়ারী ২০১৯, রবিবার ০৩:২০ পিএম |

এসএমএসে লেখা থাকবে তাদের বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন অনুমোদিত হয়েছে কিনা বা নতুনভাবে তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হতে পারবেন কিনা- এমন সব তথ্য।

রোববার থেকে সৌদি আরবের আদালতে এ বিষয়ে নতুন একটি আইন কার্যকর হয়েছে।

সৌদি আরবের গণমাধ্যম ডেইলি ওকাজ জানিয়েছে, নতুন এ আইন অনুযায়ী এখন থেকে সৌদি আরবে কোনো নারীর বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন অনুমোদন হলে আদালত এসএমএস পাঠিয়ে তাকে বিষয়টি নিশ্চিত করবেন।

এর আগের আইন অনুযায়ী স্ত্রীদের কোনো কিছু না জানিয়েই বিয়ে ভেঙে দিতে পারতেন স্বামীরা।

এ বিষয়ে দেশটির আদালতে অভিযোগ করে আসছিলেন অনেক নারী।

সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই এ নতুন আইন করা হয়েছে বলে ডেইলি ওকাজকে জানান অ্যাডভোকেট সামিয়া আল-হিনদি।

নতুন এ আইনের নির্দেশনা অনুযায়ী- এখন থেকে সৌদি নারীরা তাদের বৈবাহিক অবস্থা সম্পর্কে পুরোপুরি জানতে পারবেন এবং বিয়ের-পরবর্তী খোরপোশের অধিকার রক্ষা করতে পারবেন বলে জানান নাসরিন আল-গামদি নামে এক সৌদি নারী আইনজীবী। পাশাপাশি বিচ্ছেদের ক্ষেত্রে পুরুষদের ক্ষমতার অপব্যবহারও বন্ধ হবে বলে মন্তব্য করেন ওই আইনজীবী।

এ আইন কার্যকরের পর সৌদি আরবের অন্যান্য আইনজীবী বলছেন, ফলে দেশটিতে নারীদের ক্ষেত্রে ‘গোপন তালাক’ নামে পরিচিত হঠাৎ করে বিচ্ছেদের প্রবণতা বন্ধ হবে।

প্রসঙ্গত একজন পুরুষ অভিভাবকের (স্বামী, বাবা, ভাই অথবা ছেলে) সম্মতি ছাড়া সৌদি আরবের নারীরা এখনও বিয়ে, পাসপোর্টের জন্য আবেদন, ব্যাংকের হিসাব খোলা, অস্ত্রোপচার ও ব্যবসা করার মতো অনেক কাজ করতে পারেন না।

এভাবে সৌদি নারীরা বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ বহুদিনের।

এ আইনের পর সৌদিতে নারী বৈষম্যতা অনেকটা দূর হবে বলে মন্তব্য করছেন দেশটির নারীবাদীরা।
সূত্র: গালফ নিউজ

সিএস/সিএম/এসআইজে