সেই ‘অস্ত্রবাজ’ এখন ঢাবির শিক্ষক

gun
অনলাইন ডেস্ক ::

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে পিস্তল চালানোর প্রশিক্ষণের ছবি প্রকাশের পর তোলপাড় ছড়ানো মতিয়ার রহমান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। এর আগে তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াতেন।

মতিয়ার রহমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগে নিয়োগ পেয়েছেন অবশ্য আরও প্রায় এক বছর আগে, ২০১৬ সালের ১৭ জুলাই। তবে এই নিয়োগ এতদিন গোপন ছিল।

মতিয়ার রহমান ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক। তিনি ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের মফিজ লেকের কাছে ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সজিবুল ইসলাম সজিবের কাছে পিস্তল চালানোর প্রশিক্ষণ নিয়ে আলোচনায় আসেন। সে সময় এই ছবি গণমাধ্যম এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানোর পর সমালোচনার ঝড় উঠে।

সেদিন ছাত্রলীগ নেতার কাছে পিস্তলবাজির প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের সাবেক শিক্ষক আজিজুল হক মামুনও।

ওই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা সজীবকে সাময়িক বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। একই অভিযোগে ইবির তৎকালীন প্রক্টর মাহবুবকেও অব্যহতি দেয়া হয়।

‘অস্ত্রবাজ’ একজনকে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের চেয়ারম্যান এম এ জলিল বলেন, ‘আমি এই বিষয়ে আগে থেকে কিছু জানতাম না। গণমাধ্যমে খবরটি প্রকাশের জন্য সাংবাদিকরা ফোন দিলে বিষয়টি সম্পর্কে আমি জানতে পারি।’

বিভাগে নিয়োগের বিষয়ে আপনি জানেন না কেন-এমন প্রশ্নের জবাব না দিয়ে এম এ জলিল বলেন, ‘তার সম্পর্কে কোনো অভিযোগ থাকলে আমাকে তথ্য দিয়েন, আমি ব্যবস্থা নেব।’

বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিককে একাধিকবার কল করা হলেও তার বক্তব্য নেয়া যায়নি। তিনি ফোনটি ধরেননি। ফোন না ধরায় বক্তব্য পাওয়া যায়নি শিক্ষক মতিয়ার রহমানের। তার ফোনটি বাজতে থাকলেও তিনিও তা ধরেননি। খবর ঢাকাটাইমসের।

সিটিজিসান.কম/শিশির