প্রকাশ: ৯ ডিসেম্বর ২০১৭, ১১:২৪:২৮

চট্টগ্রামে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি, ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত

3333

চট্টগ্রাম : গভীর নিম্নচাপে পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি বর্তমানে চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ৭৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে। এর প্রভাবে আকাশ মেঘলাসহ গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। শুক্রবার থেকে সূর্যের দেখা মিলছে না। শীতের তীব্রতা ক্রমশ বাড়ছে।

এর প্রভাবে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দর সমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ শেখ ফরিদ আহমেদ জানান, ‘নিম্নচাপের প্রভাবে রাতে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবারের মতো শনিবার সকাল থেকেই আকাশ মেঘলা রয়েছে এবং গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। আজ শনিবার বিকেলের দিকে সূর্যের দেখা মিলতে পারে। নিম্নচাপের প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালার সৃষ্টি হচ্ছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।’

‘নিম্নচাপটি কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটারে মধ্যে বাতাসের একটানা সর্ব্বোচ্চ গতিবেগ ৪০ কিলোমিটার দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত পাচ্ছে। এরপ্রভাবে সাগর উত্তাল রয়েছে। চট্টগ্রামকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি উত্তর বঙ্গোপসাগরে থাকা মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।’

আবহাওয়ার বুলেটিনের বলা হয়েছে, ‘গভীর নিম্নচাপটি অনেকটা দুর্বল হয়ে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থান করছে। শনিবার (০৯ ডিসেম্বর) ভোরে গভীর নিম্নচাপটি চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ৭৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৭৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৬১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৬২০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল। এটি আরও উত্তর দিকে অগ্রসর হতে পারে।’