প্রকাশ: ১৭ অক্টোবর ২০১৭, ১২:০৪:১১

‘ব্লু হোয়েল’ আসক্ত স্কুলছাত্র হাত কেটে আঁকলো নীল তিমি

Blue-Whales
গাজীপুর : গাজীপুরের শ্রীপুরে ব্লু হোয়েল গেমে আসক্ত এক স্কুলছাত্রের খোঁজ পাওয়া গেছে। সোমবার সকালে দারগারচালা গ্রামের গাজীপুর মেরিডিয়ান স্কুলে এলে তার হাতে আঁকা রক্তাক্ত নীল তিমির ছবি দেখে শিক্ষকরা তাকে আটক করে পরিবারকে খবর দেয়। ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া রাকিব উপজেলার বহেরারচালা গ্রামের শামসুল হকের ছেলে।

গাজীপুর মেরিডিয়ান স্কুলের প্রধান শিক্ষক বিল্লাল হোসেন জানান, ‘সে কিছুদিন ধরে স্কুলে অনিয়মিত হয়ে পড়েছে। অসুস্থতাসহ বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে সে স্কুল থেকে বিভিন্ন সময় ছুটিও নেয়। সোমবার সকাল থেকে রাকিব স্কুলে এসে ক্লাস করছিল। দুপুরের দিকে হঠাৎ তার সহপাঠীদের একজন তার হাতে কোন কিছু আঁকা দেখতে পেয়ে এক শিক্ষককে জানায়। পরে ওই শিক্ষক তার শার্টের হাতা খুলে ডান হাতে রক্তাক্ত তিমির ছবি দেখতে পায়।

এ সময় তার ব্যবহৃত মোবাইলে গত রাতে ধারালো ব্লেড দিয়ে কেটে তিমির ছবি আঁকার ২মিনিট ১০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও দেখতে পান।

শিক্ষার্থী রাকিবের সাথে কথা বলে জানা গেছে, সে কিছুদিন আগে মোবাইলে একটি গেম ইন্সটল করেছিল। গত রাতে কৌতুহলবসত সে তার হাতে তিমি মাছের ছবিটি এঁকেছে বলে জানায়। পূর্বে ইন্সটল করা গেমে তাকে হাত কেটে তিমির ছবি আঁকতে বলা হয়েছিল বলে প্রথম স্বীকার করলেও পরে সে তা অস্বীকার করে।

রাকিবের মা রাহিমা খাতুন বলেন, আমার ছেলে গেমে আসক্ত হয়ে গেছে আগে খেয়াল করিনি। আমি তার ঘরে খুব কম যাই। কিছুদিন ধরে সে আগের থেকে বেশি রাগারাগি করছে। সাধারণ বিষয়ে নিয়ে রাগ করে ঘরের জিনিশপত্র ভাঙচুর করছে সে যা আগে তার মধ্যে দেখিনি।

শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, ‘বিষয়টি জেনেছি। ছেলেটি ব্লু হোয়েল গেমে আসক্ত কি না তা পরিদর্শন করতে তার বাড়িতে পুলিশ অফিসার পাঠানো হয়েছে।’