প্রকাশ: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৬:৩৯:১০

বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন, গ্রেফতার ২

khun

লোহাগাড়া :
চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলায় চরম্বা ইউনিয়নের বাইয়ার পাড়া জকরিয়া মেম্বারের বাড়ী সংলগ্ন এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এক বন্ধুর হাতে অপর বন্ধু খুন হয়েছে বলে সংবাদ পাওয়া গেছে। নিহত ব্যক্তির নাম মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান (২০)। সে একই এলাকার মো: জিয়াবুল হকের পুত্র।

১০ সেপ্টেম্বর রাত আনুমানিক সাড়ে ১০টার দিকে ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আব্দুর রহিমের মা নুরুজ্জাহান বেগম (৪৭) ও তার মেয়ে রেনু আক্তার (২২) কে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিগত ৩ বছর পূর্বে ঐ এলাকার ফয়েজুর রহমানের পুত্র আব্দুর রহিম (২৪) এর সাথে আব্দুল মান্নানের একটা দ্বন্দ সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয় শালিশী বৈঠকের মাধ্যমে বিচারকার্য সমাধান করা হয়। তাদের দুজনের মধ্যে ছিল একটা ঘনিষ্ট বন্ধুত্ব। মাঝখানে তাদের বন্ধুত্ব ভেঙ্গে যায়।

গত ১০ সেপ্টেম্বর রাতে এলাকার মতিউর রহমানের মেয়ের মেহেদী অনুষ্ঠানে দাওয়াতে যান আব্দুল মান্নান। দাওয়াত থেকে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে ডেকে এনে ঘাতক আব্দুর রহিম তার মাথায় খন্তা দিয়ে জোরে শোরে মাথায় আঘাত করলে মারাত্মক ভাবে রক্তাক্ত জখম হয়। স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার পথে তিনি মারা যান।

তাৎক্ষণিক খবর পেয়ে লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো.শাহ্জাহান পিপিএম (বার) এর নিদের্শে এসআই মো.মাহাবুব হোসেনের নেতৃত্বে একটি পুলিশী টিম ঘটনাস্থল হতে খুনি আব্দুর রহিমের মা নুরুজ্জাহান বেগম ও তার বোন রেনু আক্তারকে গ্রেফতার করে থানার হেফাজতে নিয়ে আসে। এসময় খন্তাটি উদ্ধার করা হয়। তবে, খুনি আব্দুর রহিম কৌশলে পালিয়ে যায়।

লোহাগাড়া থানার এসআই মাহাবুব হোসেন জানান, লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এঘটনায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান।

নিহতের বাবা জিয়াবুল হোসেন বলেন, মতিউর রহমানের মেয়ের মেহেদী অনুষ্ঠানে তার ছেলে আব্দুল মান্নান দাওয়াতে গেলে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে আব্দুর রহিম আমার ছেলেকে নির্মম ভাবে হত্যা করে। তিনি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠ বিচারের জোর দাবি জানান। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। আকাশ-বাতাশ ভারী হয়ে গেছে।