প্রকাশ: ১৫ মে ২০১৭, ১৬:২৫:৫৭

বিরক্ত কনে ভেঙে দিলেন বিয়ে

marriage-licenses

অনলাইন ডেস্ক:: ভারতের বিহার রাজ্যের রোহতাস জেলার মঞ্ঝিয়াবন গ্রামে বিয়ের আয়োজন চলছিল। পুনের বাসিন্দা সুভাষ শর্মার সঙ্গে বিয়ে হওয়ার কথা গুজরাতের এক ফ্যাশন ডিজাইনার নারীর।

বিয়ের মণ্ডপজুড়ে ফুলের সাজ। এলাহি আয়োজন। অতিথিরা খাচ্ছেন। হঠাৎ এক অতিথির মাথায় পড়ল খাবার।

কী ব্যাপার বুঝে ওঠার আগেই আরেক অতিথির গায়ে এসে পড়ল খাবার। এদিক-ওদিক থেকে পড়তে লাগল খাবার।

এতে হুলুস্থুল পড়ে গেল বিয়েবাড়িতে। রেগে চলে যেতে শুরু করেন অতিথিরা। খুঁজে দেখা গেল, বরের বন্ধুরাই এই কুকর্মের জন্য দায়ী। অনুরোধ করা হলেও এটিকে মজা হিসেবে নিলেন তাঁরা। খাবার ছোড়াছুড়ি চলতেই থাকল।

পরিস্থিতি দেখে কনে বিব্রত। নিজের আত্মীয়স্বজনদের অপমান মেনে নিতে পারেননি তিনি। বিষয়টি বরকে জানালেন। কিন্তু বর স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, ‘আমি তোমায় ছাড়তে পারি। কিন্তু বন্ধুদের ছাড়তে পারব না।’

এবার কনে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন। বিরক্ত হয়ে ঘটনাস্থলে দাঁড়িয়েই বিয়ে ভেঙে দিলেন।

আনন্দবাজার পত্রিকার আজ সোমবারের খবরে জানা যায়, গত বুধবার এ ঘটনা ঘটেছে।

কনের বাবার অভিযোগ, পাত্রপক্ষের বাড়ির লোকজন ও বন্ধুরা অত্যন্ত নির্বোধ। তাঁরা আমন্ত্রিত অতিথিদের সঙ্গে অভদ্র আচরণ করেছেন।

বিয়েতে আমন্ত্রিত দারিহাট থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা সিয়ারাম সিং জানান, বারবার নিষেধ করা সত্ত্বেও পাত্রের বন্ধুরা থামতে চাননি। ঘটনার পর পাত্রের বাড়ির লোকজন কনেপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছেন। তবে সমস্যার সমাধান হয়েছে কি না জানা যায়নি।

সিটিজিসান.কম/শিশির