প্রকাশ: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৩:৩০:১৮

বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তির দাবিতে কর্মসূচি দিল বিএনপি

ঢাকা : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম জিয়ার মুক্তির দাবিতে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

এসব কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি শনিবার ঢাকা মহানগরসহ সারাদেশে গণস্বাক্ষর অভিযান চালানো হবে।

পরদিন রোববার সারাদেশের জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হবে। আর ২০ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মহানগর ছাড়া দেশব্যাপী জেলা সদর ও মহানগরে বিক্ষোভ সমাবেশ করবে বিএনপি।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ে আদালত সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন। এ ছাড়া বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ পাঁচ আসামিকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড এবং দুই কোটি ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আইনি লড়াইয়ের পাশাপাশি রাজপথেও সক্রিয় বিএনপি। আজকের সংবাদ সম্মেলনে তিন দিনের কর্মসূচিও ঘোষণা করা হয়।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করছি। কিন্তু তাতেও সরকার বাধা দিচ্ছে। বর্তমান সরকার বিএনপি ও বিরোধী দলকে কথা বলা ও আন্দোলনের কোনো সুযোগই দিচ্ছে না। উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা দিচ্ছে। নাশকতা কোথায় হচ্ছে? যেখানে আমাদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের সুযোগ দিচ্ছে না। এর মাধ্যমেই পরিষ্কার হয়, সরকারের নীলনকশার অংশ হিসেবেই খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠিয়েছে।’

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, বিএনপিকে ধ্বংস করার জন্য নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় গণগ্রেপ্তার করছে। তারা চায়, বিএনপি যেন আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে না পারে। যাতে তারা আবারও একতরফাভাবে ভোট করে ক্ষমতায় থাকতে পারে।

আমরা চাই, আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে। কিন্তু সরকার শান্তিপূর্ণভাবে সবার অংশগ্রহণে সুষ্ঠু নির্বাচন চায় না। কারণ, মানুষ ভোট দিতে পারলে আওয়ামী লীগ আর ক্ষমতায় আসতে পারবে না।